দুই বিভাগে করোনায় ৫০ জনের প্রাণহানি


Published: 2021-07-23 17:45:21 BdST, Updated: 2021-09-19 10:40:52 BdST

খুলনা ও বরিশাল লাইভ: খুলনা বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে এ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ৩৬১ জনের দেহে। এদিকে বরিশাল বিভাগে একদিনে ২০ জন মৃত্যুর মিছিলে যোগ হয়েছে। এলাকায় চলছে শোকের মাতম।

খুলনা বিভাগের বিভিন্ন জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৩০ জন প্রাণ হারিয়েছেন। একই সময়ে এ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ৩৬১ জনের দেহে।

শুক্রবার বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এর আগে বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) বিভাগে ৪০ জনের মৃত্যু এবং ২১৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

স্বাস্থ্য পরিচালকের দফতর সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে কুষ্টিয়া জেলায়। বাকিদের মধ্যে খুলনায় ও যশোরে পাঁচজন করে, মেহেরপুর ও চুয়াডাঙ্গায় তিনজন করে, মাগুরায় দুইজন ও ঝিনাইদহে একজন মারা গেছেন।

খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় এ পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছে ৮৫ হাজার ৫৩৫ জনের দেহে। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন দুই হাজার ৯৩ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৯ হাজার ১১৫ জন।

এদিকে বরিশাল বিভাগে একদিনে করোনা ও উপসর্গে ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে করোনায় সাতজন ও উপসর্গে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে ১৮৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৪০ দশমিক ৬৭ শতাংশ।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকালে বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনা-সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়।
বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টায় এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ১৫ জন মারা গেছেন।

এর মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে দুইজন ও উপসর্গে ১৩ জন চিকিৎসাধীন ছিলেন। হাসপাতালের করোনা ইউনিটে শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত চিকিৎসাধীন ছিলেন ২৭৭ জন। এখানে করোনা আক্রান্ত রোগী রয়েছেন ১০১ জন।

তিনি আরও বলেন, ‘মেডিকেল কলেজের আরটিপিসিআর ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৯৯ জন পজিটিভ হন। শনাক্তের হার ৫২ দশমিক ৬৫ শতাংশ।’ স্বাস্থ্য অধিদফতরের বরিশাল বিভাগীয় পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস বলেন, ‘বিভাগের ছয় জেলায় ৪৫০ টি নমুনা পরীক্ষায় ১৮৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বিভাগে সংক্রমণের হার সবচেয়ে বেশি বরিশাল জেলায়। এ জেলায় ২৩১ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ১০৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ৪৭ দশমিক ১৯ শতাংশ। এরপর ভোলায় শনাক্তের হার ৪৭ দশমিক ১২ শতাংশ।

এ জেলায় ১০৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ৪৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। পটুয়াখালীর ২১ জনের নমুনা পরীক্ষায় আটজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ জেলায় শনাক্তের হার ৩৮ দশমিক ১০ শতাংশ।

এদিকে বরগুনায় ১১ জনের নমুনা পরীক্ষায় চারজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৬ দশমিক ৩৬ শতাংশ। ঝালকাঠীতে ১৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় চারজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ৫৩ শতাংশ।

পিরোজপুরে ৬৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬৪শতাংশ। করোনায় মৃতদের মধ্যে বরিশাল, পিরোজপুর ও ঝালকাঠীতে দুইজন করে এবং পটুয়াখালীতে একজন রয়েছেন। এই দুই বিভাগেই মৃতের সংখ্যা বেশী।

ঢাকা, ২৩ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।