হামলায় ৫৫ শিশু ও ৩৩ জন নারীসহ মোট ১৮৮ ফিলিস্তিনির মৃত্যুইসরায়েলি হামলায় একদিনেই ৫৫ শিশুর মৃত্যু, ধ্বংসস্তূপেও শিশুর কান্না


Published: 2021-05-17 01:30:08 BdST, Updated: 2021-06-22 16:38:46 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: গাজা অঞ্চলটিতে টানা সাত দিন ধরে বিমান ও কামান হামলা চালাচ্ছে ইসরাইলি বাহিনী। এ কারণে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় দখলে নেয়া ইসরাইলি সেনাবাহিনীর হামলায় ৫৫ জন নিষ্পাপ শিশু মারা গেছে। এবারই প্রথম একদিনের হামলায় এত সংখ্যক মানুষের মৃত্যু হয়। এদিকে ধ্বংসস্তূপ থেকে একটি শিশুর কান্না ভেসে আসছিল। শিশুর কান্নার আওয়াজ অনুসরণ করে বুলডোজার ও হালকা সরঞ্জাম দিয়ে কয়েক ঘণ্টা ধরে চেষ্টা চালিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় রোববার (১৬ মে) এ তথ্য জানিয়েছে।

রোববার (১৬ মে) গাজা অঞ্চলে বোমা হামলা চালিয়ে দুটি আবাসিক ভবন গুড়িয়ে দিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী। একদিনের এ হামলাসহ গত এক সপ্তাহে গাজায় ইসরাইলি বিমান, ক্ষেপণাস্ত্র ও কামান হামলায় ৫৫ শিশু ও ৩৩ জন নারীসহ মোট ১৮৮ ফিলিস্তিনির মৃত্যু হয়েছে।

সেই নিস্পাপ শিশুরা

 

এছাড়াও আহত হয়েছেন এক হাজারেরও বেশি মানুষ। ইসরায়েলি বাহিনীর হামলার প্রতিবাদে এক হাজারের বেশি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে হামাসসহ ফিলিস্তিন প্রতিরোধ সংগঠনগুলো। এসব হামলায় ইসরাইলে এখন পর্যন্ত ১০ জন নিহত হয়েছেন বলে সংবাদ প্রকাশ করেছে ইসরাইলি গণমাধ্যমগুলো।

ধ্বংসস্তূপে শিশুর কান্না:

এদিকে ইসরায়েলি সাময়িক বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ফিলিস্তিনি বেশকিছু ভবন ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। এই ধ্বংসস্তূপ থেকে একটি শিশুর কান্না ভেসে আসছিল। শিশুর কান্নার আওয়াজ অনুসরণ করে বুলডোজার ও হালকা সরঞ্জাম দিয়ে কয়েক ঘণ্টা ধরে চেষ্টা চালিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়।

খান ইউনিস থেকে গাজা সিটিতে ধ্বংসস্তূপ ভবনে উদ্ধার কাজ করতে আসেন বেসামরিক উদ্ধারকর্মী মেদহাত হামদান। ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে হতাহতদের উদ্ধারে টানা ১১ ঘণ্টা কাজ করে যাচ্ছিলেন। ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে তিনটি শিশুর মরদেহ বের করেন হামদান।

সেই অভিজ্ঞতা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, কাজটি করতে গিয়ে নিজের মধ্যে ভয় কাজ করেনি। লাশ বের করতে গিয়ে আবেগ আর কান্না ধরে রাখতে পারিনি। উদ্ধারকর্মী মেদহাত হামদান আরও বলেন, রকেট হামলায় এক পরিবারে চার সন্তান নিহত হয়েছে।

ধ্বংসস্তূপে শিশুর কান্না

 

একজন শিশু চতুর্থ শেণিতে পড়ত। তারা ঈদের আনন্দ করতে পারেনি। আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গতকাল রাতে এক ঘণ্টা ধরে দেড় শতাধিক রকেট বৃষ্টির মতো ছোড়া হয়েছে। জরুরি সহায়তা দল ধ্বংসস্তূপের ভেতর থেকে হতাহতদের উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

গাজা উপত্যকার আল-ওহেদা শহরকে কেন্দ্র করে ৭০টির বেশি রকেট ছোড়া হয়েছে। এতে আবাসিক ভবন, অবকাঠামো ও সড়ক পুরোপুরি বা কোথাও কোথাও আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। একদিনের এ হামলাসহ গত এক সপ্তাহে গাজায় ইসরায়েলি বিমান, ক্ষেপণাস্ত্র ও কামান হামলায় ১৮১ জনের মতো ফিলিস্তিনি মারা গেছেন।

নিস্পাপ শিশুদের লাশ

 

এর মধ্যে শিশু রয়েছেন ৫২ জন এবং আহত হয়েছেন এক হাজারেরও বেশি মানুষ। ইসরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় প্রতিনিয়ত ফিলিস্তিনি নাগরিকরা আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। সূত্র: আল-জাজিরা।

ঢাকা, ১৬ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।