ইবি: ‘রেজিস্ট্রারের চিঠির ভাষা শিক্ষক সমাজের প্রতি অসম্মানজনক’


Published: 2021-05-02 20:27:32 BdST, Updated: 2021-05-09 00:58:22 BdST

ইবি লাইভ: সম্প্রতি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রভাষক আরিফুল ইসলামকে সহকারী প্রক্টর পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত সেই অব্যাহতি পত্রের ভাষা নিয়ে আপত্তি তুলেছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ও প্রগতিশীল শিক্ষকদের সংগঠন শাপলা ফোরাম।

রবিবার শিক্ষক সমিতি ও শাপলা ফোরামের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত পৃথক দুই বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তি ও ক্যাম্পাস সূত্রে জানা গেছে, গত ২৩ এপ্রিল গাছ থেকে আম পাড়ার জেরে হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের মার্টার্সের (২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষ) শিক্ষার্থী হাসান আলীকে থাপ্পড় মারেন আরিফুল ইসলাম। এ ঘটনায় গত ২৭ এপ্রিল আরিফুল ইসলামকে সহকারী প্রক্টর পদ থেকে অব্যাহতি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

পরে একইদিনে তদন্ত ছাড়াই তাকে অব্যাহতি দিয়েছে উল্লেখ করে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, প্রগতিশীল শিক্ষকদের সংগঠন শাপলা ফোরাম ও বঙ্গবন্ধু পরিষদ শিক্ষক ইউনিট বরাবর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে লিখিত আবেদন করেন। ওই শিক্ষকের আবেদনের প্রেক্ষিতে এ ঘটনাকে অনভিপ্রেত উল্লেখ করে সুষ্ঠু সমাধানের লক্ষ্যে তদন্ত কমিটি গঠনপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানায় শিক্ষক নেতারা।

একইসাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মু. আতাউর রহমান স্বাক্ষরিত অব্যাহতিপত্র নিয়ে আপত্তি জানিয়েছে শিক্ষক সমিতি ও শাপলা ফোরাম। চিঠিতে লেখা ছিল, ‘আপনাকে সহকারী প্রক্টরের দায়িত্ব থেকে আপাতত অব্যাহতি দেওয়া হলো।’

রেজিস্ট্রারের চিঠির এমন ভাষা শিক্ষক সমাজের প্রতি অশােভন ও অসম্মানজনক উল্লেখ করে চিঠিটি প্রত্যাহরসহ পরবর্তী প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছে শিক্ষক নেতারা।

চিঠির ভাষা ব্যবহারের বিষয়ে রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মু. আতাউর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘কর্তৃপক্ষের অনুমুতির বাইরে আমার চিঠি দেওয়ার ক্ষমতা নেই। ভিসির নির্দেশ দিয়েছেন বলেই চিঠি করেছি। তবে অজ্ঞতাবসত চিঠিটি লেখায় আমার ভুল হয়েছে।’

ভিসি প্রফেসর ড. শেখ আবদুস সালাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘শিক্ষক সমিতি ও শাপলা ফোরামের চিঠি পেয়েছি। আমিও একজন শিক্ষক। শিক্ষকদের অমার্যাদা হোক এমন কিছু চাইনা। আমি নির্দেশ দিয়েছি বলেই রেজিস্ট্রার চিঠি দিয়েছেন। তবে চিঠি লেখার নিয়ম বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি কালচারের বিষয়। লকডাউন শেষ হলে বিষয়গুলো নিয়ে শিক্ষকদের সাথে কথা বলবো।’

ঢাকা, ২ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।