‘দুই সেকেন্ডেই সব শেষ’গাজায় আল-জাজিরার কার্যালয় মাটিতে মিশিয়ে দিল ইসরায়েল


Published: 2021-05-15 19:52:11 BdST, Updated: 2021-06-18 17:44:50 BdST

লাইভ ডেস্ক: ইসরায়েল তাদের কর্মকাণ্ড প্রচার হতে বাঁধা দিয়ে আসছিল আগে থেকেই। তারা চায়না তাদের নির্যাতনের খবর দুনিয়াবাসী জানুক। একারণেই গাজা উপত্যকায় আল-জাজিরাসহ আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের একটি কার্যালয় শনিবার (১৫ মে) বিমান হামলা চালিয়ে উড়িয়ে দিয়েছে ইসরায়েল।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকর্মীদের সরে যেতে এক ঘণ্টা সময় দেয়ার মধ্যেই গাজায় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার কার্যালয় বোমা মেরে উড়িয়ে দিয়েছে ইসরায়েলি বিমান বাহিনী।

শনিবার (১৫ মে) দুপুরে দোহাভিত্তিক আল-জাজিরাসহ আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোকে এই সময়সীমা বেধে দেয় ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী। মিডল ইস্ট আইয়ের খবরে এমন তথ্য জানায়। এর কিছুক্ষণ পরেই আল জাজিরা তার নিজের খবরেই জানায়, ভবনটি পুরোপুরি মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া হয়েছে। ছবিতে দেখা যায়, বোমা হামলার পর ভবনটি মাটিতে ভেঙে পড়ছে। ভবনটির ধ্বংসস্তূপ চারদিকে ছড়িয়ে পড়েছে।

আল-জাজিরার প্রতিবেদক সাফওয়াত আল খালাউত জানান, আমি এখানে ১১ বছর ধরে কর্মরত। এই ভবন থেকে বহু নিউজ কভার করেছি। আমার জীবনের সংবাদভিত্তিক সকল অভিজ্ঞতা এই ভবনকে ঘিরে। মাত্র দুই সেকেন্ডেই সব শেষ হয়ে গেল।

তিনি আরও বলেন, সব কিছু শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও আমাদের সহকর্মীরা থেমে যায়নি। বিকল্প উপায়ে বিশ্বকে জানিয়ে দিচ্ছি এখানে আসলে কি হচ্ছে।

আল জাজিরার আরেক প্রতিবেদক হ্যারি ফাউসেট, যিনি গাজা সিটি থেকে সংবাদ কভার করছেন তিনি বলেন, এই ঘটনা আমাদের জন্যে অত্যন্ত বিস্বাদের। জায়গাটি আর নেই বলে ধারণাটি বিশ্বাস করায় আমাদের জন্যে অস্বাভাবিক।

ওই খবরে বলা হয়, ভবনটি পুরোপুরি মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া হয়েছে। হামলায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেছি কিনা, তা এখনো জানা সম্ভব হয়নি। ছবিতে দেখা যায়, বোমা হামলার পর ভবনটি মাটিতে ভেঙে পড়ছে। ভবনটির ধ্বংসস্তূপ চারদিকে ছড়িয়ে পড়েছে। ভবনটিতে অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস ব্যুরোও কার্যালয় ছিল। ঘণ্টাখানেক আগে এটি উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিল ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী। ভবনটিতে বিভিন্ন অফিস ও অ্যাপার্টমেন্ট ছিল।

ভবনটিতে আল-জাজিরা, মিডল ইস্ট আই, অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস ও অন্য আরও কয়েকটা সংবাদমাধ্যমের কার্যালয় ছিল। ভবনটি উড়িয়ে দেওয়ার আগে সেখান থেকে সংবাদকর্মীদের চলে যেতে একঘণ্টার সময়সীমা বেধে দেওয়া হয়েছিল।

আলজাজিরার সাংবাদিক বলেন, গত ১৫ বছর ধরে ভবনটি কার্যালয় হিসেবে ব্যবহার করে আসছে তারা। সাংবাদিকরা গুরুত্বপূর্ণ অনেক নথি ও যন্ত্রপাতি বের করে নিয়ে আসতে পারেনি। ভবনটি ধ্বংস করে দেওয়ার আগে অতিরিক্ত সময় চাইলে ইসরায়েলি গোয়েন্দা বাহিনী তা দিতে অস্বীকার জানিয়েছে।

এই ধ্বংসযজ্ঞের ঘটনা সামাজিকমাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করেছেন বেশ কয়েকজন সাংবাদিক। মিডল ইস্ট আইয়ের সাংবাদিক মোহাম্মদ হাজারকেও জোর করে ভবন থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে।

গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি হামলায় এখন পর্যন্ত ১৩৯ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। নিহতদের ৩৯টি শিশু ও ২২ নারী রয়েছেন। হামলায় এখন পর্যন্ত আট ইসরায়েলি নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে সারা দুনিয়ায় মিডিয়া কর্মীরা এর নিন্দা জানিয়েছেন।

ঢাকা, ১৫ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//বিএসসি

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।