ছাত্র ইউনিয়ন: বহিষ্কৃত অংশের ‘জাতীয় জরুরি সম্মেলন’


Published: 2021-04-12 00:03:22 BdST, Updated: 2021-05-09 01:39:03 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) সোমবার বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের বহিষ্কৃত অংশের জরুরি জাতীয় সম্মেলন আহ্বান করা হয়েছে। তবে সম্মেলনকে অস্বীকার করেছেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ। নিজেরা নিজেরাই লাগছে রশি টানাটানি।

রবিবার (১১ এপ্রিল) ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সংসদের সহকারী সাধারণ সম্পাদক তামজিদ হায়দার চঞ্চল স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সম্মেলনের বিষয়ে জানানো হয়। এতে বলা হয়, ‘শিক্ষার অধিকার আদায়, গণতন্ত্র, সমাজ প্রগতির লড়াই সংগ্রাম এবং সাম্প্রদায়িকতা, সন্ত্রাস, নিপীড়ন বিরোধী আন্দোলনের ঐতিহ্যবাহী অগ্রণী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের জরুরি জাতীয় সম্মেলন আগামীকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

গঠনতান্ত্রিক শূন্যতা ও জরুরি সাংগঠনিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে গত ২৭ ও ২৮ মার্চ বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের ৪০তম জাতীয় সম্মেলনের মাধ্যমে গঠিত কেন্দ্রীয় সংসদের জরুরি সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।’

এতে আরও বলা হয়, ‘করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য বিধি মেনে সীমিত পরিসরে এবারের সম্মেলন আয়োজন করা হচ্ছে। সম্মেলন সফল করতে ইতোমধ্যেই ৭১ সদস্যের প্রস্তুতি পরিষদ ও ১০টি উপ-পরিষদের কাজ শেষ পর্যায়ে। বিগত সম্মেলনে অংশগ্রহণকৃত সারাদেশ থেকে ৪৮টি সাংগঠনিক জেলার দুই শতাধিক প্রতিনিধি জরুরি জাতীয় সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবে।’

ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ’র কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাদের কিছু জনশক্তির ঐক্যের আহ্বানে আজ আমাদের সম্পাদকমণ্ডলীর জরুরি সভা ছিলো। সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয় যে, আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে ছাত্র ইউনিয়নকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাব।

এজন্য আগামীকাল রাত নয়টায় কেন্দ্রীয় সভা আহ্বান করা হয়েছে। সেখানে আমাদের যে বহিষ্কারাদেশগুলো আছে সেগুলোর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। আমাদের ৪ জুন যে সম্মেলন আছে সেটা হয়তো আমরা এগিয়ে ২৬ বা ৩৭ এপ্রিলে নিয়ে আসব। এরপরেও যদি ছাত্র ইউনিয়নের নাম ব্যবহার কেউ ১২ তারিখ সম্মেলন করে সেটা কোনোভাবেই ছাত্র ইউনিয়নের না।

১২ তারিখ ছাত্র ইউনিয়ন কোনো সম্মেলন আহ্বান করেনি। যারা সম্মেলন ঢেকেছে তারাও আমাদের আজকের সভায় ছিলো। তাদেরকে সম্মেলন করতে না করা হয়েছে এবং তারা সেটা মেনে নিয়েছে।’ বহিষ্কারকৃত অংশের সদস্য ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক রাগীব নাঈম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমাদের ভারপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক তামজিদ হায়দার চঞ্চল সম্মেলন আহ্বান করেছেন। সম্মেলনের অন্যতম একটি অংশ চায় নতুন কমিটি ঘোষণা করা।’

তাহলে ছাত্র ইউনিয়ন কি ভেঙে যাচ্ছে? এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘এটা ধরে নেওয়ার কিছু নেই। নতুন কমিটি আসার পর বোঝা যাবে এটা ভাগ হচ্ছে কিনা।’ কেন্দ্রীয় সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ’র সঙ্গে মিটিংয়ের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানান।

ঢাকা, ১১ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।