উচ্চশিক্ষা-গবেষণায় বঙ্গবন্ধুর আকাঙ্ক্ষা পূরণে ইউজিসির অঙ্গীকার


Published: 2021-06-15 20:17:57 BdST, Updated: 2021-07-27 22:12:31 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে শিক্ষা, গবেষণা ও মুক্তচিন্তা চর্চার কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে ১৯৭৩ সালে এক অধ্যাদেশের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে স্বায়ত্বশাসন প্রদান করেছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর দেখভাল করার জন্য বঙ্গবন্ধু বিশ্বাবদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন প্রতিষ্ঠা করেন। তাঁর স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে গুণগত শিক্ষা ও গবেষণার সূতিকাগার হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। এক্ষেত্রে কোন প্রকার ছাড় দেয়ার সুযোগ নেই। এজন্য প্রয়োজন সকল ক্ষেত্রে ইনোভেশন।

মঙ্গলবার (১৫ জুন) ইউজিসি থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে শিক্ষা, গবেষণা ও মুক্তচিন্তা চর্চার কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে ১৯৭৩ সালে এক অধ্যাদেশের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে স্বায়ত্তশাসন দিয়েছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর দেখভাল করার জন্য বঙ্গবন্ধু বিশ্বাবদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) প্রতিষ্ঠা করেন।

এর আগে সোমবার (১৪ জুন) ইউজিসি সদস্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর ভার্চুয়াল মাধ্যমে অনুষ্ঠিত উদ্ভাবন ও সেবা সহজীকরণ বিষয়ে দিনব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে ইউজিসির কর্মকর্তাদের এ আহ্বান জানান।

প্রফেসর ড. আলমগীর বলেন, ‘যেকোনও ইনোভেশনের ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সংশ্লিষ্ট সকলের কমিটমেন্ট এবং নতুন কিছু করার আকাঙ্ক্ষা। কমিটমেন্টের সঙ্গে আকাঙ্ক্ষা যুক্ত হলে লক্ষ্য অর্জন করা সহজ হয়।’

কম সময়ে ও কম খরচে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে কাঙ্ক্ষিত সেবা দিতে নতুন ধারনার সূচনা ও বাস্তবায়ন করতে ইউজিসির পরিচালক ও অতিরিক্ত পরিচালকদের প্রতি আহ্বান জানান অধ্যাপক আলমগীর।

প্রফেসর ড. আলমগীর আরও বলেন, ‘বর্তমানে উচশিক্ষা খাতে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৪৩ লাখের বেশি। দেশে ১৫০টির বেশি পাবলিক ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। সেবা সহজীকরণ ও সেবা দিতে ইনোভেশনযুক্ত করা না গেলে এই বিশাল সংখ্যক শিক্ষার্থী ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আকাঙ্ক্ষা পূরণ করা সম্ভব হবে না।’

ঢাকা, ১৫ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।