যে কারণে গ্রেফতার আত্রাই উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান


Published: 2021-05-17 20:52:06 BdST, Updated: 2021-06-22 17:50:47 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: ব্যবসার লেনদেন ও রাজনৈতিক আধিপত্যকে কেন্দ্র করে নওগাঁর আত্রাই উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার সোয়েবের দুই হাত ও পায়ের রগ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। রোববার (১৬ মে) বিকেলে উপজেলার নিউমার্কেটের দ্বিতীয় তলায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় সোমবার সকালে (১৭ মে) ১২ জনের নাম এবং অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জন কে আসামি করে মামলা হয়েছে। মামলায় আত্রাই উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমকে হুকুমের (তার নির্দেশ) ১ নম্বর আসামি করা হয়েছে। আহতের স্ত্রী সাবরিনা সুলতানা বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন।

মামলার পরিকল্পনাকারী হিসাবে উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমকে সকাল ১১ টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে আটক করেছে আত্রাই থানা পুলিশ।

এর আগে রোববার (১৬ মে) দুপুরে উপজেলার নিউমার্কেটের দ্বিতীয় তলায় সরদার সোয়েব এর অফিসে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমের ছেলে ক্যাডার বাহিনী মির্জা রাব্বীর বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ উঠে।

এতে তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় গুরুতর জখম হয়েছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সোমবার ভোরে রাজশাহী থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার পপুলার হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। বর্তমানে সরদার সোয়েব অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আত্রাই থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমকে মামলায় আসামি করায় তাকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর অন্য আসামিদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।

ঢাকা, ১৭ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।