দীর্ঘ দেড় বছর পর শাবিপ্রবির হলে শিক্ষার্থীদের উচ্ছ্বাস


Published: 2021-10-25 14:03:38 BdST, Updated: 2021-11-28 05:24:21 BdST

শাবি লাইভ: মহামারি করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে দীর্ঘ দেড় বছর বন্ধ থাকার পর শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) সব আবাসিক হল খুলে দেওয়া হয়েছে। সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি হলের গেট আবাসিক শিক্ষার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হয়।

জানা গেছে, হলে প্রবেশের সময় হলের বৈধ পরিচয়পত্র, বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্র এবং করোনার টিকা গ্রহণের প্রমাণপত্র দেখিয়ে হলে প্রবেশ করেন শিক্ষার্থীরা। এসময় তাদের ফুল, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, খাবার ও মাস্ক উপহার দেওয়া হয়।

অন্যদিকে সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের টিভি রুমে শিক্ষার্থীদের প্রত্যাবর্তন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। হল প্রভোস্ট প্রফেসর মোহাম্মদ সামিউল ইসলামের সভাপতিত্বে এতে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন আহমেদসহ অন্যান্য হলের প্রভোস্ট ও সহকারী প্রভোস্টরা।

এসময় ভিসি বলেন, দীর্ঘ ৫৮৫ দিন পর সব হল খুলে দিয়েছি। শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে হলে উঠতে হবে। হলে ওঠার ক্ষেত্রে অবৈধ কোনো শিক্ষার্থীকে স্থান দেওয়া হবে না। এ বিষয়ে সরকারের নির্দেশনা কঠোরভাবে মানা হবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক প্রফেসর জহীর উদ্দীন আহমেদ, প্রক্টর অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর ড. মো. আলমগীর কবীর, রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন প্রমুখ।

এদিকে দীর্ঘদিন পর হলে ফিরতে পেরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থী সাজ্জাদ ভূঁইয়া বলেন, দীর্ঘ দেড় বছর পর আবার হলে উঠতে পারলাম। বিষয়টি আমাদের জন্য অবশ্যই আনন্দের। হল কর্তৃপক্ষের সুন্দর ব্যবস্থাপনা আমাদের মুগ্ধ করেছে। আমরা যারা হলে উঠেছি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবো।

বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের আবাসিক শিক্ষার্থী সাবিহা সায়মন পুষ্প বলেন, এ দিনটির জন্য অপেক্ষা করছিলাম। অবশেষে পেলাম। এখন মনে হচ্ছে পৃথিবীটাও সুস্থ, সব স্বাভাবিক।


ঢাকা, ২৫ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।