মেঝেতে পড়ে ছিল শিক্ষিকার লাশ, ফ্যানে ঝুলছিল গৃহকর্মী


Published: 2021-06-20 15:26:23 BdST, Updated: 2021-08-02 10:53:21 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: সিলেটের ওসমানীনগরে ঘর থেকে স্কুল শিক্ষিকার ও গৃহকর্মীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিাবর দিবাগত রাত ৮টার দিকে দয়ামীর ইউনিয়ন এর সোয়ারগাও গ্রামের ডাঃ বিজয় ভুষন দে এর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হচ্ছেন, সোয়ারগাও গ্রামের ডাঃ বিজয় ভুষন দে শিক্ষিকা তপতী রানী দে (৫৫) ও কাজের ছেলে গৌরাঙ্গ বৈদ্য (২৫)।

পুলিশ জানায়, ওসমানীনগরে দয়ামীর ইউনিয়নের সোয়াইরগাওর এলাকার বাসিন্দা তপতী রানী দে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা এবং ডা. বিজয় ভুষন দে’র স্ত্রী। রাতে জানালা দিয়ে প্রতিবেশিরা গৃহকর্মী গৌরাঙ্গ বৈদ্যের ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, তপতী রানী দে’র স্বামী ও ছেলেমেয়ে চিকিৎসক। স্বামী ও ছেলের সাথে তিনি সোয়াইরগাঁও গ্রামের বাড়িতে থাকেন। শনিবার বিকেলে স্বামী ও ছেলে প্রাইভেট প্র্যাকটিসে গিয়েছিলেন। সেসময় বাসায় কেবল তপতি ও গৌরাঙ্গ ছিলেন। সন্ধ্যার পর কোনো একসময়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সিলেটের ওসমানীনগর থানার ওসি শ্যামল বণিক জানান, শিক্ষিকা তপতী রানী দে’র স্বামী ও ছেলেমেয়ে চিকিৎসক। স্বামী ও ছেলের সঙ্গে তিনি সোয়াইরগাও গ্রামের বাড়িতে থাকতেন। স্থানীয়দের খবরে পুলিশ বসত ঘর থেকে মরদেহ উদ্ধার করে।

ঢাকা, ২০ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।