বৃদ্ধ বাবাকে লাথি মারলেন শিক্ষক ছেলে, ছবি ভাইরাল


Published: 2021-10-13 09:47:00 BdST, Updated: 2021-10-19 04:39:22 BdST

পাবনা লাইভ: পাবনার চাটমোহর উপজেলায় বাবাকে লাথি মারাসহ লাঞ্ছিত করেছেন তারই শিক্ষক ছেলে। এ ঘটনার একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এরই মধ্যে বাবার করা মামলায় সেই ছেলেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতে মামলাটি করেন ভুক্তভোগী আতাউর রহমান। অভিযুক্ত ছেলের নাম মো. মজনুর রহমান। তিনি চাটমোহর সরকারি আরসিএন অ্যান্ড বিএসএন মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ভোকেশনাল শাখার ট্রেড ইন্সট্রাক্টর। এর আগে সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সোমবার সকালে বাবা আতাউর রহমানের চাকরিস্থল মহেলা ডাকঘরে যান মজনুর। ডাকঘরে ঢুকে বাবাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করেন তিনি। একপর্যায়ে অফিসের কাগজপত্র তছনছ করে ডাকঘরের মোবাইল ফোনটি বাবার কাছ থেকে ছিনিয়ে নেন। পরে মোবাইল ফোনটি নিয়ে মোটরসাইকেলে উঠতে চাইলে বাধা দেন বাবা। বাধা দেওয়ায় বাবাকে লাথি মারেন তিনি। এ সময় বাবার সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি ও ধস্তাধস্তিও করেন। পরে আশপাশের লোকজন এসে মজনুরকে নিবৃত করে পিটুনি দিয়ে তাড়িয়ে দেন।

ঘটনার পর আতাউর রহমানকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে তিনি চাটমোহর থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন। এ ঘটনায় মজনুরকে আটক করে পুলিশ। পরে ছেলের নামে মামলা করেন বাবা।

‘চেতনায় চাটমোহর’ নামে ফেসবুক গ্রুপে পোস্ট দিলে মুহূর্তেই ভাইরাল হয়। ছেলের বিরুদ্ধে শুরু হয় মন্তব্য। তারা লেখেন, শিক্ষক যদি এমন হয় তাহলে ছাত্রছাত্রীদের কী শিক্ষা দিবে? এই শিক্ষকের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে অবিলম্বে বিতাড়িত করা হোক। ভুক্তভোগী বাবা আতাউর রহমান বলেন, এমনভাবে আমাকে ছেলে মারধর ও লাঞ্ছিত করেছে যে বাধ্য হয়েই আইনের দ্বরস্থ হয়েছি।

চাটমোহর সরকারি আরসিএন অ্যান্ড বিএসএন উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুস ছালাম জানান, যা ঘটেছে তা খুবই লজ্জাকর ও দুঃখজনক। একজন শিক্ষকের কাছ থেকে এমন আচরণ কাম্য নয়। ইতিমধ্যে বিষয়টি ইউএনওকে জানিয়েছি।

চাটমোহর থানার ওসি (তদন্ত) হাসান বাছির বলেন, এ ঘটনায় ছেলের বিরুদ্ধে বাবা মামলা দায়ের করেছেন। বর্তমানে আসামি থানায় রয়েছেন। তাকে আদালতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

ঢাকা, ১৩ অক্টোবর (ক্যাম্পাসইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।