চলে গেলেন সিকৃবির প্রফেসর ড. মাহফুজুল হক


Published: 2021-04-13 18:31:45 BdST, Updated: 2021-05-09 01:09:22 BdST

সিকৃবি লাইভ: না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিকৃবি) উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব ও বীজ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. এ. এইচ. এম. মাহফুজুল হক (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বহুদিন থেকে তিনি কিডনি জটিলতায় ভুগছিলেন, মৃত্যুর কয়েকদিন আগে তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন।

আজ ১৩ এপ্রিল দুপুর ২টা ২০ মিনিটে সিলেটের শহীদ শামসুদ্দিন আহমেদ হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

জানা গেছে, করোনা ভাইরাসের আক্রমনে তাঁর ফুসফুসের ৭২ ভাগ বিকল হয়ে যায়। তবে তিনদিন আগে তার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। গত সোমবার শহীদ শামসুদ্দিন আহমেদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর শরীর হুট করে খারাপ করলে তাঁকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয় এবং মঙ্গলবার দুপুরে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

এদিকে গত মাসেই ড. মাহফুজ তার স্ত্রীকে হারিয়েছেন। তার স্ত্রী ইশরাত জাহান গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ের উপ-সচিব ছিলেন এবং সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডিতে অধ্যয়নরত ছিলেন। একমাসের ব্যবধানে মা-বাবা কে হারিয়ে ড. মাহফুজের দুটি শিশু সন্তান শোকের সাগরে ভাসলো।

ড. মাহফুজ ২০১৩ সালে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। এর আগে তিনি বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটে বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

ড. মাহফুজের মরদেহ মঙ্গলবার সিকৃবি ক্যাম্পাসে নিয়ে আসা হয়। সিকৃবির কেন্দ্রীয় মসজিদ প্রাঙ্গনে বাদ আসর স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে একটি জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। ড. মাহফুজের এই হৃদয়বিদারক মৃত্যুতে সমগ্র ক্যাম্পাসে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শোক প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ মতিয়ার রহমান হাওলাদার।

এছাড়া শিক্ষক সমিতি, অফিসার পরিষদ, কর্মচারী পরিষদ, গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদ, গণতান্ত্রিক অফিসার পরিষদ শোক প্রকাশ করেছে। উল্লেখ্য, গত ৫ সেপ্টেম্বর করোনায় আক্রান্ত হয়ে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক শিক্ষক প্রফেসর ড. মোঃ আবু বকর সিদ্দিক মৃত্যুবরণ করেছিলেন।

ঢাকা, ১২ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমজেড

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।